১৯৯২ সালের বিশ্বকাপের মঞ্চে ভারতের পারফরম্যান্সের ব্যাপারে জেনে নিন

সেপ্টে. 16, 2023

No tags for this post.
Spread the love

India vs Pakistan 1992 World Cup. (Photo Source: Patrick Eagar/Patrick Eagar via Getty Images)

১৯৯২ সালের বিশ্বকাপটি অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ড যৌথভাবে অনুষ্ঠিত করেছিল। এই বিশ্বকাপে ভারতীয় দল মহম্মদ আজহারউদ্দিনের নেতৃত্বে খেলেছিল। ভারত এই টুর্নামেন্টটিতে খুবই খারাপ পারফরম্যান্সের প্রদর্শন করেছিল। তারা ৮টি ম্যাচের মধ্যে মাত্র ২টি ম্যাচে জয় পেয়েছিল এবং রাউন্ড-রবিন পর্ব থেকে বিদায় নিয়েছিল।

১৯৯২ সালের বিশ্বকাপে ট্রফি জিতেছিল পাকিস্তান। তারা ফাইনালে ইংল্যান্ডকে ২২ রানে পরাজিত করেছিল। এটি ছিল পাকিস্তানের প্ৰথম বিশ্বকাপ ট্রফি। অন্যদিকে, ইংল্যান্ড ১৯৮৭ সালের পর ১৯৯২ সালের বিশ্বকাপেও রানার-আপ হয়েছিল।

১. ভারত বনাম ইংল্যান্ড (ম্যাচ ২)

Team India. (Photo Source: David Munden/Popperfoto via Getty Images/Getty Images)

এই ম্যাচটিতে ভারত মাত্র ৯ রানে হেরে গিয়েছিল। ইংল্যান্ড প্ৰথমে ব্যাটিং করে স্কোরবোর্ডে ৫০ ওভারে ৯ উইকেটে ২৩৬ রান তুলেছিল। রবিন স্মিথ ১০৮ বলে ৯১ রানের একটি অসাধারণ ইনিংস খেলেছিলেন। কপিল দেব, মনোজ প্রভাকর এবং জাভাগল শ্রীনাথ ২টি করে উইকেট নিয়েছিলেন।

ভারত রান তাড়া করতে নেমে ৪৯.২ ওভারে ২২৭ রানে অলআউট হয়ে গিয়েছিল। রবি শাস্ত্রী ১১২ বলে ৫৭ রান করেছিলেন। ডার্মট রিভ ৬ ওভারে ৩৮ রান দিয়ে ৩টি উইকেট শিকার করেছিলেন। ইয়ান বোথাম ১০ ওভারে ২৭ রান দিয়ে ২টি উইকেট নিয়েছিলেন এবং ম্যাচসেরার পুরস্কার পেয়েছিলেন।

২. ভারত বনাম শ্রীলঙ্কা (ম্যাচ ৯)

Team India. (Photo Source: David Munden/Popperfoto via Getty Images/Getty Images)

বৃষ্টির কারণে এই ম্যাচটি দেরি করে শুরু হয়েছিল এবং ওভার কমে ২০ হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু মাঠে নামার পর আবার বৃষ্টি শুরু হয়ে গিয়েছিল এবং ম্যাচটি পুরোপুরিভাবে ভেস্তে গিয়েছিল। এই ম্যাচটিতে মাত্র ২ বল খেলা সম্ভব হয়েছিল। যেহেতু ম্যাচটিতে কোনও ফলাফল পাওয়া যায়নি সেহেতু উভয় দলকেই ১ পয়েন্ট করে দেওয়া হয়েছিল।

৩. ভারত বনাম অস্ট্রেলিয়া (ম্যাচ ১২)

IND vs AUS. (Photo Source: David Munden/Popperfoto via Getty Images/Getty Images)

অস্ট্রেলিয়া প্ৰথমে ব্যাটিং করে স্কোরবোর্ডে ৫০ ওভারে ৯ উইকেটে ২৩৭ রান তুলতে সক্ষম হয়েছিল। ডিন জোনস ১০৮ বলে ৯০ রানের একটি দারুণ ইনিংস খেলেছিলেন। কপিল দেব এবং মনোজ প্রভাকর ৩টি করে উইকেট পেয়েছিলেন।

বৃষ্টির কারণে দ্বিতীয় ইনিংসে ওভার এবং লক্ষ্য কমে যথাক্রমে ৪৭ এবং ২৩৬ হয়ে গিয়েছিল। ভারত মাত্র ১ রানে ম্যাচটি হেরে গিয়েছিল। মহম্মদ আজহারউদ্দিনের নেতৃত্বাধীন দল ৪৭ ওভারে ২৩৪ রানে অলআউট হয়ে গিয়েছিল। আজহারউদ্দিন ১০২ বলে ৯৩ রানের একটি অসাধারণ ইনিংস খেলেছিলেন। টম মুডি ৩টি উইকেট নিয়েছিলেন। এই ম্যাচটিতে ম্যাচসেরার পুরস্কার পেয়েছিলেন ডিন জোনস।

৪. ভারত বনাম পাকিস্তান (ম্যাচ ১৬)

IND vs PAK. (Photo Source: David Munden/Popperfoto via Getty Images/Getty Images)

ভারত ৪৯ ওভারে ৭ উইকেটে ২১৬ রান করেছিল। সচিন তেন্ডুলকার ৬২ বলে অপরাজিত ৫৪ রানের একটি গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলেছিলেন। মুশতাক আহমেদ ১০ ওভারে ৫৯ রান দিয়ে ৩টি উইকেট শিকার করেছিলেন।

পাকিস্তান রান তাড়া করতে নেমে ৪৮.১ ওভারে ১৭৩ রানে অলআউট হয়ে গিয়েছিল। আমের সোহেল ৯৫ বলে ৬২ রানের একটি সুন্দর ইনিংস খেলেছিলেন। কপিল দেব, মনোজ প্রভাকর এবং জাভাগল শ্রীনাথ ২টি করে উইকেট নিতে সক্ষম হয়েছিলেন। এই ম্যাচটিতে ম্যাচসেরার পুরস্কার জিতেছিলেন সচিন তেন্ডুলকার।

৫. ভারত বনাম জিম্বাবুয়ে (ম্যাচ ১৯)

Team India. (Photo Source: David Munden/Popperfoto via Getty Images/Getty Images)

এই ম্যাচটিতে বৃষ্টি বিঘ্ন ঘটিয়েছিল। ভারত ৫৫ রানে (সংশোধিত লক্ষ্য) ম্যাচটি জিতে নিয়েছিল। মহম্মদ আজহারউদ্দিনের নেতৃত্বাধীন দল প্রথমে ব্যাটিং করে স্কোরবোর্ডে ৩২ ওভারে ৭ উইকেটে ২০৩ রান তুলেছিল। সচিন তেন্ডুলকার ৭৭ বলে ৮১ রানের একটি দুর্ধর্ষ ইনিংস খেলেছিলেন। মার্ক বার্মেস্টার এবং জন ট্রাইকস ৩টি করে উইকেট পেয়েছিলেন।

জিম্বাবুয়ে ১৯.১ ওভারে ১ উইকেটে ১০৪ রান করতে সক্ষম হয়েছিল। অ্যান্ডি ফ্লাওয়ার ৫৬ বলে ৪৩ রান করে অপরাজিত ছিলেন। এই ম্যাচটিতে সচিন তেন্ডুলকারকে ম্যাচসেরার পুরস্কার দেওয়া হয়েছিল।

৬. ভারত বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ (ম্যাচ ২৪)

Team India. (Photo Source: David Munden/Popperfoto via Getty Images/Getty Images)

এই ম্যাচটিতে বৃষ্টি সমস্যার সৃষ্টি করেছিল। ভারত ৪৯.৪ ওভারে মাত্র ১৯৭ রানে অলআউট হয়ে গিয়েছিল। মহম্মদ আজহারউদ্দিন ৮৪ বলে ৬১ রান করতে সক্ষম হয়েছিলেন। অ্যান্ডারসন কামিন্স ১০ ওভারে মাত্র ৩৩ রান দিয়ে ৪টি উইকেট শিকার করেছিলেন।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৪০.২ ওভারে ৫ উইকেটে ১৯৫ রান (সংশোধিত লক্ষ্য) করেছিল এবং ম্যাচটিতে জয় পেয়েছিল। কিথ আর্থারটন ৯৯ বলে ৫৮ রান করে অপরাজিত ছিলেন। জাভাগল শ্রীনাথ ৯ ওভারে মাত্র ২৩ রান দিয়ে ২টি উইকেট নিয়েছিলেন। এই ম্যাচটিতে ম্যাচসেরার পুরস্কার জিতেছিলেন অ্যান্ডারসন কামিন্স।

৭. ভারত বনাম নিউজিল্যান্ড (ম্যাচ ২৭)

Kapil Dev. (Photo Source: David Munden/Popperfoto via Getty Images/Getty Images)

এই ম্যাচটিতে ভারত ৪ উইকেটে পরাজিত হয়েছিল। ভারতীয় দল ৫০ ওভারে ৬ উইকেটে ২৩০ রান করতে সক্ষম হয়েছিল। সচিন তেন্ডুলকার ১০৭ বলে ৮৪ রানের একটি সুন্দর ইনিংস খেলেছিলেন। ক্রিস হ্যারিস ৯ ওভারে ৫৫ রান দিয়ে ৩টি উইকেট নিয়েছিলেন।

নিউজিল্যান্ড ৪৭.১ ওভারে ৬ উইকেটে ২৩১ রানে পৌঁছে ম্যাচটি জিতে নিয়েছিল। মার্ক গ্রেটব্যাচ ৭৭ বলে ৭৩ রানের একটি দারুণ ইনিংস খেলেছিলেন। মনোজ প্রভাকর ১০ ওভারে ৪৬ রান দিয়ে ৩টি উইকেট নিয়েছিলেন। এই ম্যাচটিতে মার্ক গ্রেটব্যাচকে ম্যাচসেরার পুরস্কার দেওয়া হয়েছিল।

৮. ভারত বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা (ম্যাচ ৩২)

IND vs SA. (Photo Source: Patrick Eagar/Popperfoto via Getty Images/Getty Images)

এই বিশ্বকাপে এটি ছিল ভারতের শেষ ম্যাচ। বৃষ্টির কারণে এই ম্যাচের ওভার কমে ৩০ হয়ে গিয়েছিল। ভারত প্ৰথমে ব্যাটিং করে স্কোরবোর্ডে ৩০ ওভারে ৬ উইকেটে ১৮০ রান তুলতে সক্ষম হয়েছিল। মহম্মদ আজহারউদ্দিন ৭৭ বলে ৭৯ রানের একটি অসাধারণ ইনিংস খেলেছিলেন। অ্যালান ডোনাল্ড এবং আদ্রিয়ান কুইপার ২টি করে উইকেট পেয়েছিলেন।

দক্ষিণ আফ্রিকা ২৯.১ ওভারে ৪ উইকেটে ১৮১ রান করার মাধ্যমে ম্যাচটি জিতে নিয়েছিল। পিটার কার্স্টেন ৮৬ বলে ৮৪ রানের একটি দারুণ ইনিংস খেলেছিলেন এবং ম্যাচসেরার পুরস্কার জিতেছিলেন।

The post ১৯৯২ সালের বিশ্বকাপের মঞ্চে ভারতের পারফরম্যান্সের ব্যাপারে জেনে নিন appeared first on CricTracker Bengali.

Subscribe to Telegram
শীঘ্রই শুরু হতে যাচ্ছে আইসিসি বিশ্বকাপ! প্রারম্ভিক একচেটিয়া উপহারের জন্য এখনই MCW-তে সদস্যতা নিন!
অ্যাটলেটিকো ডি মাদ্রিদ আনুষ্ঠানিক আঞ্চলিক পার্টনার হিসাবে মেগা ক্যাসিনো ওয়ার্ল্ড (MCW) ঘোষণা করেছে।
বুন্দেসলিগা ইন্টারন্যাশনাল এশিয়ার মেগা ক্যাসিনো ওয়ার্ল্ডের সাথে একটি আঞ্চলিক অংশীদারিত্বে সম্মত হয়েছে
প্রিটোরিয়া ক্যাপিটালস SA20 এর দ্বিতীয় সিজনের জন্য প্রধান অংশীদার হিসাবে মেগা ক্যাসিনো ওয়ার্ল্ডকে ঘোষণা করেছে
Mega Casino World Anrich Nortje কে নতুন ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে ঘোষণা করেছে
MCW Sports Joins Gladiators’ Family as Platinum Sponsor for PSL8
MCW Sports - Ambassador